বাইন মাছের তরকারি রান্না করার ১০০% সঠিক ও সহজ রেসিপি

বাইন মাছের তরকারি রান্না করার ১০০% সঠিক ও সহজ রেসিপি

মাছ রান্নার রেসিপি

৭রং রেসিপি ব্লগ পেজে আপনাকে স্বাগতম! আজকে আমরা বাইন মাছের তরকারি রান্না করার সহজ পদ্ধতি জানবো। আমাদের দেশে বেশ কয়েক প্রকারের বাইন মাছ পাওয়া যায়! সকল প্রকার বাইন মাছ বা বাইন জাতীয় মাছ দিয়ে এই মজার তরকারি রান্না করা যাবে।

বাইন মাছের তরকারি পরিচিতি:

এই তরকারিতে কোনো প্রকার শাক-সবজি ব্যবহার করা হয় না! বাইন মাছ, পেঁয়াজ, রসুন, আদা সহ কয়েকটি মশলা দিয়ে তরকারি রান্নার কাজ সম্পন্ন করা হয়।

এই বাইন মাছের তরকারি মূলত ভাতের সাথে পরিবেশন করা হয়। আমাদের দেশের খাবার হোটেল গুলোতে বাইন মাছের তরকারি পাওয়া যায়; এবং এই মাছের তরকারি সকলের কাছে সমান ভাবে জনপ্রিয়।

বাইন মাছের তরকারি রান্না করার উপাদান পরিমাপ সহঃ

  • বাইন মাছ নিতে হবে বড় একটি অথবা ছোট হলে ৩৫০ গ্রাম।
  • সয়াবিন তেল নিতে হবে হাফ কাপ।
  • দেশি পেঁয়াজ স্লাইস করে নিতে হবে ২ টেবিল চামচ।
  • মেথি হাফ চা চামচ।
  • আদা বাটা নিতে হবে হাফ চা চামচ।
  • রসুন বাটা হাফ চা চামচ।
  • পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ।
  • হলুদ বাটা বা গুড়ো ১ চা চামচ নিতে হবে।
  • মরিচ বাটা ১ চা চামচ।
  • জিরা বাটা ২ চা চামচ।
  • ধনে বাটা ২ চা চামচ।
  • গোল মরিচ বাটা ১ চা চামচের ৪ ভাগের ১ ভাগ
  • তেজপাতা নিতে হবে ১ টি।
  • লবণ ১ চা চামচ বা স্বাদ মতো।

বাইন মাছের তরকারি রান্না করার নিয়ম:

প্রথমে বাইন মাছ পরিষ্কার করে নিয়ে, ২ সেমি করে লম্বা করে করে টুকরা করে নিতে হবে। এরপরে; পাত্রে তেল গরম করে তাতে মেথি দিয়ে ফোরন দিয়ে নিয়ে; তাতে স্লাইস করা পেঁয়াজ ঢেলে দিতে হবে এবং সামান্য ভাজতে হবে।

পেঁয়াজ সামান্য বাদামি রং ধারণ করলে তার মধ্যে ১টি তেজপাতা ও বাটা মশলা সমূহ ঢেলে দিতে হবে; এবং সাথে ১ কাপ পানি দিতে হবে। এরপরে কিছুক্ষণ ধরে মশলা কষিয়ে নিতে হবে।

মাছের মশলা কষানোর এক পর্যায়ে পানি শুকিয়ে তেল বের হলে; মশলা নেড়ে আরো কষাতে হবে। মাছের মশলা পাত্রে লেগে আসলে; তাতে অল্প অল্প পরিমান পানি ঢেলে আরো ২ মিনিট কষিয়ে নিতে হবে।

আরো পড়ুন- রুই মাছের মুড়োঘন্ট

এখন মশলার মধ্যে মাছ দিয়ে আরো ২ কাপ পানি দিতে হবে। এভাবে রান্না করতে করতে পানি কমে, তরকারির তেল উপরে উঠে আসলে; লবনের স্বাদ পরিক্ষা করে, বাইন মাছের তরকারি চুলা থেকে নামিয়ে রাখতে হবে! গরম ভাতের সাথে বাইন মাছের তরকারি পরিবেশন করতে হবে।

রান্নার সতর্কতা:

  • রান্নার সময় যেনো অগ্নিকান্ড না ঘটে সেদিক খেয়াল রাখতে হবে।
  • তরকারি রান্নার মশলা যেনো পুরে না যায়।
  • লবণের স্বাদ ঠিক রাখতে হবে।
  • সকল মশলা সঠিক ভাবে পরিমাপ করতে হবে।

সোর্চ-ইন্টারনেট..

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *