পুডিং বানানোর সহজ রেসিপি জেনে নিন

পুডিং বানানোর সহজ রেসিপি জেনে নিন

কেক বানানোর রেসিপি মুখরোচক মজার খাবার

প্রিয় পাঠক, আজ আমরা পুডিং বানানোর সহজ রেসিপি শিখে নিব। বিভিন্ন উপকরন দিয়ে বিভিন্ন স্বাদের পুডিং বানানো যায়! আজ আমরা ১৩ রকমের মজার মজার পুডিং বানানোর রেসিপি শিখবো। ডিম ফেটিয়ে, চিনি ও দুধের সাথে মিশিয়ে সাধারণত পুডিং বনানো হয় ! ভাপে সিদ্ধ বা ওভেনে বেক করলে তখন পুডিং জমে যায়; আবার ঘন দুধ বা বিস্কুটের গুড়ো মিশালে পুডিং আরো তারাতারি জমে যায়। কোনো খাওয়ার অনুষ্ঠানে সবার শেষে সাধারনত পুডিং পরিবেশন করা হয় ! আমরা আজ যে যে পুডিং বানানোর রেসিপি জানবো তা হলোঃ

  1. ভেনিলা পুডিং
  2. ক্যারামেল পুডিং
  3. ভাপে পুডিং
  4. কোকো পুডিং
  5. ক্রিম পুডিং
  6. ব্রেড পুডিং
  7. পার্টি পুডিং
  8. স্পঞ্জ কেক পুডিং
  9. বাদাম নারিকেল পুডিং
  10. নারিকেল ভাপে পুডিং
  11. চকলেট সুফলে পুডিং
  12. আনারসের সুফলে পুডিং
  13. মনোহর পুডিং

১। ভেনিলা পুডিং বানানোর সহজ রেসিপি:

উপকরণঃ
ভেনিলা পুডিং বানানোর জন্য প্রয়োজীয় সকল উপকরণের নাম ও উপকরণের পরিমাপ নিচের লিস্ট থেকে দেখে নিনঃ

  • চিনি নিতে হবে ১ কাপের ৩ ভাগের ১ ভাগ
  • কর্ণফ্লাওয়ার নিবেন ৩ টেবিল চামচ
  • লবণ ১ চা চামচের ৪ ভাগের ১ ভাগ
  • দুধ আড়াই কাপ নিতে হবে
  • ভেনিলা লাগবে দেড় চা চামচ

ভেনিলা পুডিং বানানোর নিয়ম:
প্রথমে চিনি, কর্ণ ফ্লাওয়ার ও লবণ এক সাথে মেশাতে হবে। এরপরে অল্প অল্প করে দুধ ঢেলে মেশাতে হবে! চুলায় দিয়ে, চলার আঁচ মাঝারি করে দিতে হবে। মাঝারি আঁচে নাড়তে নাড়তে দুধ গরম হয়ে গেলে চুলার আঁচ অল্প করে দিয়ে নাড়তে থাকতে হবে। এরপরে; দুধ ফুটে উঠার পরে আরো ২ থেকে ৩ মিনিট নেড়ে নেড়ে ফুটিয়ে নিয়ে নামানোর পরে, ভেনিলা মেশাতে হবে।

ভেনিলা পুডিং বানানোর এ পর্যায়ে ৬ টি পুডিং এর বাটিতে আথবা বড় একটি বাটিতে ঢেলে পুডিং ঠান্ডা করে নিতে হবে! এরপরে, পুডিং রেফ্রিজারেটরে রেখে জমাতে হবে। ঠিক মতো জমে গেলে পুডিং এর বাটি উল্টিয়ে পুডিং বের করে নিতে হবে ! এই ভাবে সহজেই ভেনিলা পুডিং বানানো যাবে।
রান্না শিক্ষার pdf বই ডাউনলোড করুন ফ্রি

২। ক্যারামেল পুডিং বানানোর রেসিপি:

উপকরণঃ
ক্যারমেল পুডিং বানানোর জন্য যাবতীয় উপকণের লিস্ট দেখে নিন-

  1. দুধ নিতে হবে ২ কাপ
  2. চিনি ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ (ক্যারামের সসের জন্য)
  3. চিনি ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ (পুডিং বানানোর জন্য)
  4. ফুটানো পানি ১ কাপের ৩ ভাগের ১ ভাগ
  5. কর্ণ ফ্লাওয়ার ৩ টেবিল চামচ
  6. লবণ ১ চা চামচের ৪ ভাগের ১ ভাগ
  7. ভেনিলা ১ চা চামচ

ক্যারামেল পুডিং বানানোর নিয়ম:

এই ক্যারামেল পুডিং বানানোর জন্য প্রথমেই ক্যারামের সস বানাতে হবে। এজন্য; ক্যারামেল সসের জন্য নেয় চিনি একটি সসপ্যানে ছড়িয়ে দিয়ে চুলায় দিতে হবে। চুলার আঁচ কমিয়ে দিতে হবে! যখন চিনি গলে যাবে তখন আরো নেড়ে নেড়ে চিনি বাদামি রং করে নিতে হবে। এরপরে; চলা থেকে নামিয়ে তার মধ্যে ধীরে ধীরে ফুটানো পানি ঢেলে দিতে হবে। আবার তা চুলায় দিয়ে নাড়তে থাকতে হবে। এরপরে; ক্যারামেল পানিতে গুলে গেলো নামিয়ে রাখতে হবে।

ক্যারমেল পুডিং বানানোর জন্য চিনি, কর্ণফ্লাওয়ার এবং লবণ ভারী সসপ্যানে একত্রে মিশাতে হবে। এরপরে; ক্যারামেল মিশাতে হবে। এরপরে, চলায় মাঝারি আঁচে নেড়ে নেড়ে রান্না করতে হবে! যখন গরম ও ঘন হতে শুরু করবে তখন আরো আঁচ কমিয়ে ২-৩ মিনিট রান্না করতে হবে। এরপরে ভেনিলা দিতে হবে হবে এবং পুডিং রান্না হয়ে যাবে।

৬ টি পুডিং এর কাপে ক্যারামেল পুডিং ঢেলে ঠান্ডা করে নিতে হবে। এরপরে; ক্যারামেল পুডিং রেফ্রিজারেটরে রেখে জমিয়ে নিতে হবে। পুডিং জমে গেলে, খাওয়ার আগে কাপ থেকে বের করে নিতে হবে।

ওভেনে ক্যারামেল পুডিং বানানোর নিয়ম:

ওভেনে ক্যারামেল পুডিং বানানোর জন্য প্রথমেই উপরের রেসিপি অনুযায়ী ক্যারামেল তৈরি করে নিতে হবে। এরপরে; কয়েকটি ওভেন প্রূফ বাটিতে ক্যারামের ঢেলে নিয়ে উপরের রেসিপির মতো পুডিং এর উপকরন এক সাথে মিশিয়ে তা; বাটিতে রাখা ক্যারামেলের উপর ঢালতে হবে।

এরপরে, ওভেনের ট্রে তে অর্ধেক পরিমান গরম পানি দিয়ে, ক্যারামেলের বাটি বসিয়ে ওভেনে দিতে হবে। এভাবে; ১৭০ ডিগ্রি সেঃ তাপে ২৫ থেকে ৩০ মিনিট বেক করতে হবে! তাহলে, খুব সহজেই ওভেনে ক্যারমেল পুডিং বানানো হয়ে যাবে।

আরো পড়ুন-
চাইনিজ খাবারের কয়েকটি সেরা রেসিপি

৩। ভাপে পুডিং বানানোর রেসিপি:

উপকরণঃ
ভাপে পুডিং বানানো অনেক সহজ। ভাপে পুডিং বানানোর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণের লিস্ট দেখে নিন:

  • ডিম নিতে হবে ৩ টি
  • দুধ নিতে হবে ২ কাপ
  • চিনি নিতে হবে ৬ টেবিল চামচ
  • চিনি ১ কাপ (ক্যারামেল মেলড এর জন্য)
  • ভেনিলা নিতে হবে ৪ ফোঁটা

ভাপে পুডিং বানানোর নিয়ম: ডিম ভেঙ্গে একটি পাত্রে রেখে কাঁটাচামচ দিয়ে অল্প অল্প করে ফেটিয়ে নিতে হবে! দুধ ও চিনি মিশিয়ে তারপরে ভেনিলা মেশাতে হবে।

ভারী এ্যালুমিনিয়ামের একটি পাত্র নিতে হবে। পাত্রে ১ কাপ চিনি এবং ১ টেবিল চামচ পানি মিশাতে হবে! এরপরে, অল্প আঁচে চুলায় দিয়ে নাড়তে হবে। চিনি হালকা বাদামী হলে নামাতে হবে। আবার; তাতে অল্প অল্প ফুটানো পানি দিয়ে নাড়তে হবে! এভাবে, ধীরে ধীরে পানি দিয়ে নাড়লে ক্যারামেল মসৃণ হবে। ঘন করার জন্য অল্প আঁচে ১০ মিনিট রান্না করতে হবে। এভাবে মোল্ড বানানো যাবে।

মিশানো দুধ, ডিম মোলডে ঢেলে দিতে হবে। বড় একটি সসপ্যানে ফুটানো পানি ঢেলে মোল্ড বসিয়ে দিতে হবে; যেনো মোল্ডের এক চতুর্থাংশ পানির নিচে থাকে। কারন; সসপ্যানে পানি বেশি হয়ে গেলে ফুটার সময় তা মোল্ডের ভেতর ঢুকে যেতে পারে।

এভাবে চূুলার আঁচ মাঝারি রেখে ১ থেকে ২ ঘন্টা ফুটালে, ভাপে সিদ্ধ হয়ে পুডিং জমে যাবে! এভাবে ভাপে পুডিং বানানো যাবে।

৪। কোকো পুডিং বানানোর রেসিপি:

উপকরণঃ
কোকো পুডিং বানানোর উপকরণ লিস্ট নিচে দেয়া হলো:

  1. ঘন দুধ ২ কাপ
  2. ডিম নিতে হবে ৪ টি
  3. চিনি নিতে হবে ১ কাপের ৪ ভাগের ৩ ভাগ
  4. কোকো নিতে হবে ১ টেবিল চামচ

কোকো পুডিং বানানো নিয়ম: প্রথমে ৪ কাপ দুধ নিয়ে জাল দিয়ে ঘন করে ২ কাপ বানিয়ে নিতে হবে। এরপরে; দুধের সাথে কোকো বা চকলেট মেশাতে হবে। এরপরে; একটি পাত্রে চিনির ক্যারামেল বনিয়ে – ৩ নং রেসিপি অনুুযায়ী ভাপে পুডিং বানানোর সহজ নিয়মে, কোকো পুডিং বানাতে হবে।

৫। ক্রিম পুডিং বানানোর রেসিপি:

উপকরণঃ
ক্রিম পুডিং বানানোর জন্য সকল উপকরনের নাম ও পরিমাণ জেনে নিন:

  • চিনি নিতে হবে ৭ টেবিল চামচ
  • ঘি নিতে হবে ১ টেবিল চামচ
  • হাঁসের ডিম নিতে হবে ৪ টি
  • কনডেন্সড মিল্ক নিতে হবে ১ টিন
  • গোলাপ জল ২ টেবিল চামচ
  • পানি ৪ টেবিল চামচ

ক্রিম পুডিং বানানোর নিয়ম: প্রথমে পুডিং বানানোর জন্য ১৮-১৯ সেন্টিমিটার ব্যাসের ঢাকনা সহ একটি মোল্ড নিতে হবে। অথবা অ্যালুমিনিয়াম এর সসপ্যান হলেও হবে! পুডিং এর মোল্ডে ৪ টেবিল চামচ চিনি ছড়িয়ে দিতে হবে। এরপরে, চুলার মাঝারি আাঁচে চিনি গলিয়ে লাল করতে হবে! লক্ষ রাখতে হবে যেনো, চারধারেই সমানভাবে লাল হয়। যখন চিনি গলে লালচে বাদামী রঙের ক্যারামেল হবে, তখন পাত্র চুলা থেকে নামাতে হবে; এবং ক্যারামেলের উপরে ঘি দিতে হবে।

হাঁসের ডিমগুলো ভালোমতো ফেটিয়ে নিতে হবে। এরপরে; ডিমের সাথে বাকি ৩ টেবিল চামচ চিনি মেশাতে হবে। কনডেন্সড মিল্কের সাথে গোলাপজল ও পানি মেশাতে হবে! তা ডিমের সাথে দিয়ে আরো ফেটতে হবে, যেনো ডিম, দুধ ও চিনি ভালো ভাবে মিশে যায় ! ভালো করে মেশানোর পরে মিশ্রণ মোল্ডে ঢেলে দিতে হবে।

এরপরে, বড় সসপ্যানে পানি দিয়ে মোল্ড বসাতে হবে। পানি এমন পরিমাণে দিতে হবে যেনো- মোল্ডের ৩ ভাগের ১ ভাগ ডুবে থাকে! এরপরে, খবরের কাগজ ভাজ করে মোটা বানিয়ে মোল্ডের মুখ ঢেকে দিতে হবে! কাগজের মুখে একটি ঢাকনা দিয়ে ভারী কিছু চাপা দিতে হবে। এরপরে; বড় সসপ্যানে ঢাকনা দিয়ে ১ থেকে দেড় ঘন্টা মাঝারি আঁচে জ্বাল দিলেই মজাদার ক্রিম পুডিং বানানোর কাজ হয়ে যাবে।

৬। ব্রেড পুডিং বানানোর সহজ রেসিপি:

উপকরণঃ
ব্রেড পুডিং বানানোর সমস্ত উপাদান হাতের নাগালেই পাওয়া যায়! এই মজাদার ব্রেড পুডিং তৈরির উপাদানের নাম ও পরিমাপ নিচের দেয়া হলোঃ

  1. ব্রেড পুডিং এর জন্য দুধ নিতে হবে ৪ কাপ
  2. টোস্ট বিস্কুট নিতে হবে ৪ টি
  3. ডিম নিতে হবে ৮ টি
  4. চিনি নিতে হবে দেড় কাপ
  5. গোলাপ জল নিতে হবে ১ চা চামচ
  6. ঘি ২ টেবিল
  7. সামান্য জাফরান নিতে হবে।

ব্রেড পুডিং বানানোর নিয়মাবলী: প্রথমে ৪ কাপ দুধ জাল দিয়ে ২ কাপ বানাতে হবে; এবং সেই দুধের মধ্যে টোস্ট বিস্কুট ভেজাতে হবে। ডিম ভেঙ্গে নিয়ে একটি কাটা চামচ দিয়ে অল্প করে ফেটতে হবে। ডিমের সাথে অর্ধেক চিনি মেশাতে হবে।

টোস্ট বিস্কুট দুধে ভিজে নরম হলে একটি চামচ দিয়ে ঘুটে মিশিয়ে নিতে হবে। বাকি অর্ধেক চিনি এর মধ্যে মিশাতে হবে! এরপরে ডিম, দুধ ও গোলাপজল দিয়ে মেশাতে হবে।

মোল্ড বা একটি সসপ্যানে ঘি মাখিয়ে পুডিং ঢালতে হবে। মোল্ডে ঘি না মাখিয়ে চিনি ক্যারামেল করলেও হবে! এরপরে, পুডিং, ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট ধরে বেক করতে হবে; অথবা ভাপে পুডিং রেসিপি বানানোর মতো, ভাপে সিদ্ধ করলেও পুডিং বানানো যাবে। এছাড়া; কাঠ কয়লার আগুনে দমে দিয়েও পুডিং বানানো যায়! এভাবে সহজেই ব্রেড পুডিং বানানো যাবে।

৭। পার্টি পুডিং রেসিপি রেসিপি:

উপকরণঃ
পার্টি পুডিং সাধারণত বেশি লোকের উদ্দেশ্যে বানানো হয় ! এই পার্টি পুডিং বানানোর জন্য যেই উপকরণ সমূহ প্রয়োজন তার লিস্ট নিচে দেয়া হলোঃ

  • দুধ নিতে হবে ৫ লিটার বা ২০ কাপ
  • টোস্ট বিস্কুট ২০০ গ্রাম
  • ডিম নিতে হবে ১৬ টি
  • চিনি নিতে হবে ১ কেজি
  • কোকো নিতে হবে ১ টেবিল চামচ

পার্টি পুডিং বানানোর নিয়ম:
প্রথমে সমস্ত দুধ জ্বাল দিয়ে ঘন করে অর্ধেক করতে হবে। এরপরে; দুধে টোস্ট বিস্কুট ভেজাতে হবে এবং বিস্কুট ভালো করে ভিজলে একটি চামচ দিয়ে ভালো করে মেশাতে হবে।

ডিম অল্প ফেটতে হবে এবং ডিম, ‍দুধ ও চিনি একসাথে মিশাতে হবে! কোকো সামান্য দুধের সাথে গুলে নিয়ে ডিমের সাথে মেশাতে হবে।

২ টি মোল্ডে অথবা একটি সসপ্যানে চিনি ক্যারামেল করতে হবে; এবং মোল্ডে দুধ ও ডিমের মিশ্রণ ঢালতে হবে। এরপরে, পুডিং ১ থেকে ২ ঘন্টা ভাপে সিদ্ধ করতে হবে; অথবা ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সে. তাপে দেড় ঘন্টা রাখতে হবে।

পার্টি পুডিং রান্না করা হয়ে গেলে তা ঠান্ডা করতে হবে এবং পুডিং জমানোর জন্য কিছুক্ষণ রেফ্রিজারেটরে রাখতে হবে! পার্টি পুডিং আরো আকর্ষনীয় করার জন্য ক্যারামেল সস করতে হবে।

ক্যারেমল সস বানানোর জন্য ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ চিনি নিয়ে ১ কাপের ৪ ভাগের ৩ ভাগ পানি ঢেলে ফুটাতে হবে ! এরপরে, চিনি গলে গেলে তার মধ্যে ১ টেবিল চামচ কর্ণফ্লাওয়ার গুলে দিতে হবে। যখন ফুটে উঠবে এবং ঘন হবে তখন নামিয়ে রাখতে হবে! এই ক্যারামেল সস ঠান্ডা হলে হলে তা পার্টি পুডিং উপরে ঢেলে দিতে হবে। এরপরে পার্টি পুডিং পরিবেশন করতে হবে।

৮। স্পঞ্জ কেক পুডিং রেসিপি:

উপকরণঃ
স্পঞ্জ কেক পুডিং বানানোর জন্য সহজ রেসিপি ও রেসিপির সমস্ত উপকরণ ও উপকরণের পরিমাপ নিচে দেয়া হলোঃ

  1. স্পঞ্জ কেক নিতে হবে ২০০ গ্রাম
  2. মাখন বা ঘি নিতে হবে ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ
  3. বাদাম নিতে হবে মাত্র ৫ টি
  4. কিসমিস নিতে হবে ১০ টি
  5. চিনি নিতে হবে হাফ কাপ
  6. ডিম নিতে হবে ৪ টি
  7. দুধ ২ কাপ নিতে হবে
  8. ভেনিলা নিতে হবে হাফ কাপ

স্পঞ্জ কেক বানানোর নিয়ম:
প্রথমেই স্পঞ্জ কেক টকরা করে নিতে হবে। এরপরে; মাখন বা ঘি এর সাথে স্পঞ্জ কেক মিশাতে হবে।
ফুটানো পানিতে বাদাম দিয়ে ৩ থেকে ৪ মিনিট সিদ্ধ করতে হবে! পরে নামিয়ে বাদাম লম্বা কুঁচি করে নিতে হবে। এরপরে; পুডিং এর মোল্ডে ১ টেবিল চামচ চিনি দিয়ে ক্যারামেল করতে হবে।

কেক, কিসমিস ও বাদাম মিশিয়ে মোল্ডে নিতে হবে। ডিম ও চিনি অল্প ফেটতে হবে ! এরপর তাতে ভেনিলা দিতে হবে। তার মধ্যে হালকা গরম দুধ ঢেলে মিশাতে হবে। এখন; মোল্ডের কেকের উপর সব মিশ্রণ একসাথে ঢেলে দিতে হবে।

এই স্পঞ্জ কেক পুডিং ভাপে সিদ্ধ করে, অথবা প্রেসার কুকারে ১০ পাউন্ড প্রেসারে ৫ মিনিট ফুটাতে হবে ! ব্যাস, এভাবেই হয়ে গেলো মজাদার স্পঞ্জ কেক পুডিং বানানো। স্পঞ্জ কেক পুডিং লেমন সস দিয়ে পরিবেশন করা যাবে।

৯। বাদাম নারিকেল পুডিং রেসিপি:

উপকরণঃ
বাদাম আর নারিকেল অনেকের কাছেই প্রিয়! যেকোনো খাবারে বাদাম আর নারিকেল দিলে তার স্বাদ হয়ে উঠে অস্বাধারণ ! আজ আমরা মজাদার বাদাম নারিকেল দিয়ে পুডিং বানানোর সহজ রেসিপি শিখে নিব। বাদাম নারিকেল পুডিং বানানোর উপকরনের লিস্ট দেখে নিনঃ

  • দুধ ৫ কাপ নিতে হবে।
  • বাদাম কুচি করে নিতে হবে ২৫০ গ্রাম
  • চালের গুড়া নিতে হবে ১০০ গ্রাম
  • চিনি নিতে হবে ৩০০ গ্রাম
  • লবণ স্বাদ মতো দিতে হবে
  • ১০০ গ্রাম পেস্তা কুচি করে নিতে হবে
  • নারিকেল মিহি করে নিতে হবে ১০০ গ্রাম

রেসিপি দেখে বাদাম নারিকেল পুডিং বানানোর নিয়ম:
প্রথমে ৫ কাপ দুধ জ্বাল দিয়ে দিয়ে প্রায় ২ কাপের মতো করতে হবে! এক কাপ দুধের সাথে বাদাম মিশিয়ে রাখতে হবে। বাকি দুধের সাথে চালের গুড়ো মিশিয়ে চুলায় দিতে হবে; এবং নেড়ে নেড়ে ফুটাতে হবে।

চালের গুড়ো এবং দুধ ঘন হয়ে এলে সামান্য চিনি ঢেলে আরো নাড়তে হবে। লবণ ও বাদাম মিশিয়ে রাখা দুধ এবার ঢেলে দিতে হবে; এবং নাড়তে থাকতে হবে। কিছুক্ষণ সামান্য আঁচে ঢেকে রাখতে হবে; এবং বাদাম নারিকেল পুডিং যখন ঘন কাস্টার্ডের মতো হবে তখন পুডিং নামিয়ে ফেলতে হবে।

পুডিং ঠান্ডা করার জন্য একটি বড় খোলা পাত্রে রাখা যেতে পারে। অথবা; বাদাম নারিকেল পুডিং আরো ঠান্ডা বা জমানোর জন্য রেফ্রিজারেটরে রাখা যেতে পারে ! পুডিং খাবার জন্য পরিবেশন করার আগে পেস্তার কুচি ও নারিকেল ছিটিয়ে দিলে বেশ ভালো লাগবে।

১০। নারিকেল ভাপে পুডিং রেসিপি:

উপকরণঃ
নারিকেল ভাপে পুডিং বানানোর রেসিপির জন্য প্রয়োজনীয় সকল উপদানের নাম ও পরিমাণ নিচে দেয়া হলো:

  • দুধ নিতে হবে হাপ কাপ
  • টোস্ট বিস্কুটের গুড়া নিতে হবে হাফ কাপ
  • নারিকেল কুড়ানো নিতে হবে ১ কাপের ৪ ভাগের ৩ ভাগ
  • মাখন নিতে হবে ৪ টেবিল চামচ
  • চিনি নিতে হবে হাফ কাপ
  • ডিমের কুসুম নিতে হবে ৭ টি
  • ডিমের সাদা অংশ নিতে হবে ৭ টি
  • ময়দা নিতে হবে ১ কাপ
  • বেকিং পাউডার নিতে হবে ১ চা চামচ
  • লাল রং নিতে হবে ১ চা চামচের ৮ ভাগের ১ ভাগ

রেসিপি অনুযায়ী ভাপে নারিকেল পুডিং বানানোর সহজ নিয়ম: প্রথমেই টোস্টের গুড়ায় দুধ মিশিয়ে একটি মোটা চালুনি দিয়ে চেলে নিতে হবে। এরপরে; তাতে নারিকেল দিয়ে মেশাতে হবে। মাখন ও চিনি এক সাথে ফেটে নিতে হবে! ফেটানোর সময় একটা একটা করে ডিমের কুসুম দিতে হবে। এরপরে; নারিকেল, দুধ মিশিয়ে রাখা মিশ্রণ ঢেলে হালকা করে নেড়ে নেড়ে মেশাতে হবে।

ময়দার সাথে বেকিং পাউডার মিশিয়ে চেলে নিতে হবে। আগের নারিকেলের মিশ্রণের সাথে এই ময়দা মিশিয়ে খামির বানাতে হবে! খামিরে লাল রং মেশাতে হবে।

ডিমের সাদা অংশ আলাদা ভাবে ফেটে ঘন বানাতে হবে; এবং খামিরের মধ্যে ঢেলে মেশাতে হবে। মোল্ড বা সসপ্যানে বড় কাগজ বিছিয়ে খামির ঢালতে হবে ! এরপরে, এই নারিকেলের পুডিং ভাপে সিদ্ধ করার পদ্ধতিতে সিদ্ধ করতে হবে; অথবা ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপে ১ ঘন্টা রাখতে হবে! ব্যাস, এভাবে তৈরি হয়ে যাবে মজাদার নারিকেল ভাপে পুডিং।

১১। চকলেট সুফলে পুডিং বানানোর সহজ রেসিপি:

উপকরণঃ
মজাদার চকলেট সুফলে পুডিং বানানোর সমস্ত উপকরণের নাম ও পরিমান নিচে দেয়া হলোঃ

  • হুইপ্ড ক্রিম নিতে হবে ১ রেসিপি সমান। (হুইপড ক্রিম বানানোর রেসিপি জেনে নিন)
  • ২ টেবিল চামচ জেলাটিন নিতে হবে
  • ডিমের কুসুম নিতে হবে ৬ টি
  • ডিমের সাদা অংশ নিতে হবে ৬ টি
  • চিনি নিতে হবে ১ কাপ
  • কর্ণফ্লাওয়ার নিতে হবে ২টেবিল চামচ
  • ৪ কাপ হালকা গরম দুধ নিতে হবে
  • কোকো নিতে হবে ১ টেবিল চামচ
  • চিনি নিতে হবে ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ

চকলেট সুফলে পুডিং বানানোর নিয়ম: প্রথমে; একটি অ্যালুমিনিয়ামের পাত্র নিয়ে তাতে ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ পানি দিয়ে জেলাটিন ভিজিয়ে রাখতে হবে! ৬ টি ডিমের কুসুম ও চিনি একসাথে মেশাতে হবে। এরমধ্যে; অল্প দুধ, কোকো এবং কর্ণ ফ্লাওয়ার দিয়ে ভালো ভাবে মিশাতে হবে। বাকি দুধ দিয়েও মেশাতে হবে।

এরপরে, চুলায় দিয়ে নাড়তে থাকতে হবে; এবং যখন ফুটে উঠবে তখন চুলার আঁচ কমিয়ে নাড়তে হবে! এই কাস্টার্ড ঘন হয়ে এলে চুলা থেকে নামিয়ে রাখতে হবে।

জেলাটিন অল্প আঁচে চুলায় দিয়ে ঘন ঘন নাড়তে হবে! জেলাটিন গলে গেলে আগের নামিয়ে রাখা গরম কাস্টার্ডের সাথে মেশাতে হবে! কাস্টার্ডের পাত্র ঠান্ডা পানির উপর রেখে নাড়তে হবে। আরো ঠান্ডা করার জন্য রেফ্রিজারেটরে রাখতে হবে।

ডিমের সাদা অংশ আলাদা পাত্রতে নিয়ে ভালো করে ফেটতে হবে! তার মধ্যে ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ চিনি নিয়ে আল্প অল্প করে দিতে হবে এবং ফেটতে হবে।

দুইটি কাগজের খিলিতে ৪ টেবিল চামচ হুইপ্ড ক্রিম নিতে হবে! বাকি হুইপ্ড ক্রিম ঠান্ডা কাস্টার্ডের সাথে মেশাতে হবে। মেরাং দিয়ে ভাজে ভাজে মেশাতে হবে।

কাস্টার্ড দুটি পরিবেশনের পাত্রে নিতে হবে; এবং কাস্টার্ডের উপরে কাগজের খিলির হুইপ্ড ক্রিম দিতে হবে! এই চকলেট সুফলে পুডিং পরিবেশনের আগ পর্যন্ত রেফ্রিজারেটরে রাখতে হবে।

১২। আনারসের সুফলে পুডিং রেসিপি:

উপকরণঃ
আনারসের সুফলে পুডিং বানানোর সহজ রেসিপি এবং সমস্ত উপকরণের নাম ও পরিমান নিচে দেয়া হলোঃ

  • ১ রেসিপি সমান হুইপ্ড ক্রিম নিতে হবে
  • জেলাটিন নিতে হবে ২ টেবিল চামচ
  • ডিমের কুসুম নিতে হবে ৬ টি
  • ডিমের সাদা অংশ নিতে হবে ৬ টি
  • কর্ণ ফ্লাওয়ার নিতে হবে ২ টেবিল চামচ
  • চিনি নিতে হবে ১ কাপের ৪ ভাগের ৩ ভাগ
  • আবারও চিনি হাফ কাপ নিতে হবে
  • দুধ নিতে হবে ৪ কাপ
  • আনারস ২ কাপ নিতে হবে
  • ইয়োলো কালার লেমন নিতে হবে সামান্য

আনারসের সুফলে পুডিং বানানোর নিয়ম:

প্রথমে ছোট একটি এ্যালিউমিনিয়ামের বাটিতে হাফ কাপের কম পানি দিয়ে জেলাটিন ভিজিয়ে রাখতে হবে। ডিমের কুসুম; কর্ণফ্লাওয়ার ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ চিনি ঢেলে, দুধ ও লেমন রং এক সাথে মেশাতে হবে! এই সব এক সাথে মিশিয়ে রান্না করে কাস্টার্ড বানাতে হবে। কাস্টার্ড ঘন হলে চুলা থেকে নামাতে হবে।

জেলাটিনের বাটি অল্প আঁচে চুলায় দিয়ে নেড়ে নেড়ে গলিয়ে নিতে হবে! জেলাটিন গলে গেলে সাথে সাথে গরম কাস্টার্ডের সাথে মেশাতে হবে! এরপরে, ঠান্ডা পানিতে পাত্র রেখে নাড়তে হবে। এরপরে ঠান্ডা হলে রেফ্রিজারেটরে রাখতে হবে।

১৫ মিনিট পর পর দুবার কাস্টার্ড নামিয়ে ভালোভাবে নাড়তে নাড়তে হবে। কাস্টার্ডের বাটি আবার রেফ্রিজারেটরে রাখতে হবে।

আনারস গোল গোল স্লাইস করে কাটতে হবে। ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ চিনি ও সামান্য পানি দিয়ে; আনারস সিদ্ধ করতে হবে। আনারস ঠান্ডা হলে কুচি করে কাটতে হবে। এরপরে; ডিমের সাদা অংশ এবং ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ চিনি আলাদা পাত্রে নিয়ে ভালো ভাবে ফেটে মেরাং বানাতে হবে।

আনারস এবং আগের তৈরি কাস্টার্ড একসাথে মেশাতে হবে। এরপরে; দুটি কাগজের খিলিতে ৪ টেবিল চামচ হুইপ্ড ক্রিম নিতে হবে। বাকি ক্রিম কাস্টার্ডের সাথে মিশাতে হবে; এবং মেরাং দিয়ে আলতো ভাবে মেশাতে হবে।

দুইটি মাঝারি আকারের পাত্র নিয়ে তাতে আনারসের সুফলে পুডিং সমান ভাগ করে রেফ্রিজারেটরের মধ্যে রাখতে হবে! সুফলে পুডিং জমে গেলে উপরে ক্রিম দিয়ে পছন্দ মতো সাজাতে হবে; এবং পুডিং খাওয়ার আগ পর্যন্ত রেফ্রিজারেটরেই রাখতে হবে।

১৩। মনোহর পুডিং বানানোর রেসিপি:

উপকরণঃ
মজাদার মনোহর পুডিং বানানোর সমস্ত উপকরণ নিচে দেয়া হলো:

  • জেল্লো নিতে হবে ১ প্যাকেট
  • জেলাটিন নিতে হবে ২ টেবিল চামচ
  • ডিমের কুসুম নিতে হবে ৩ টি
  • ডিমের সাদা অংশও নিতে হবে ৩ টি
  • কর্ণফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ
  • চিনি ৮ টেবিল চামচ নিতে হবে
  • দুধ নিতে হবে ২ কাপ
  • ক্রিম নিতে হবে ৩ টেবিল চামচ
  • ভেনিলা নিতে হবে মাত্র চার ফোঁটা
  • কোকো নিতে হবে ২ টেবিল চামচ
  • হুইপ্ড ক্রিম নিতে হবে হাফ রেসিপি

মনোহর পুডিং বানানোর নিয়ম: প্রথমে ১ কাপ পানিতে জেল্লো গুলে নিয়ে তা পুডিং এর মোল্ডে নিয়ে রেফ্রিজারেটরে রাখতে হবে! জেল্লো জমে গেলে ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ পানিতে জেলাটিন ভেজাতে হবে।

ডিমের কুসুম; কর্ণফ্লাওয়ার ও ৬ টেবিল চামচ চিনি ও দুধ দিয়ে কাস্টার্ড বানাতে হবে। এরপরে; জলাটিন চুলায় দিয়ে গলাতে হবে। জেলাটিন গলিয়ে গরম কাস্টার্ডে দিয়ে নাড়তে হবে! আবার তা ঠান্ডা করে রেফ্রিজারেটরে রাখতে হবে।

ডিমের সাদা অংশ নিয়ে তাতে ২ টেবিল চামচ চিনি অল্প অল্প করে দিয়ে দিয়ে ফেটে মেরাং করতে হবে! ক্রিম ও ভেনিলা মেশাতে হবে। এরপরে; ঠান্ডা কাস্টার্ড এর সাথে মেরাং মিশিয়ে ঢেকে রেফ্রিজারেটরে রাখতে হবে।

জেল্লো জমার পরে রেফ্রিজারেটর থেকে মোল্ড বের করতে হবে! মোল্ডে জেল্লোর উপরে অর্ধেক কাস্টার্ড দিয়ে প্রায় ২-৩ ঘন্টা রেফ্রিজারেটরে রাখতে হবে। এরপরে; বাকি অর্ধেক কাস্টার্ডের সাথেও কোকো মিশিয়েও রেফ্রিজারেটরে রাখতে হবে। কাস্টার্ড ভালো ভাবে জমলে; মোল্ড বের করে তার মধ্যে আবার কোকো মিশানো কাস্টার্ড দিয়ে রেফ্রিজারেটরে রেখে দিতে হবে।

মহোহর পুডিং খাওয়ার জন্য পরিবেশন করার আগে মোল্ড গরম পানিতে ৩০ সেকেন্ড রাখতে হবে; এবং ছুড়ি দিয়ে মোল্ড থেকে পুডিং ছাড়িয়ে উল্টে ঢেলে নিতে হবে ! মনোহর পুডিং স্লাইস করে কেটে কেটে হুইপ্ড ক্রিম দিয়ে সাজাতে হবে। এভাবেই সহজে মনোহর পুডিং বানানো যাবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *